অথরিটি, ফ্রিডম অ্যান্ড গড

কয়েক বছর আগের একেবারেই ইনফর্মাল টক। ‘অথরিটি, ফ্রিডম অ্যান্ড গড’ সম্পর্কে যারা অল্প কথায় মূল পয়েন্টগুলো জানতে চান, তারা এই সংক্ষিপ্ত ভিডিওটি দেখতে পারেন।

ফেসবুক থেকে নির্বাচিত মন্তব্য-প্রতিমন্তব্য

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক: for Zillur Rahman, ‘ঈশ্বর সর্বশক্তিমান’ কথাটার তাৎপর্য

আক্কাস আলী: “যুক্তিসংগত যে কোনো ক্ষমতার ক্ষেত্রে ঈশ্বর সব ধরনের ক্ষমতার অধিকারী।”

স্যার, তারপরও কিন্তু সৃষ্টিকর্তার সর্বশক্তিমান হবার দাবিটা নিয়ে অনেক প্রশ্ন থেকে যায়।

তাছাড়া, কোরানে বর্ণিত বিভিন্ন কাহিনী কিন্তু সৃষ্টিকর্তার ‘অযৌক্তিক ক্ষমতা’ থাকার কথা বলে!! যেমন, লাঠি সাপ হয়ে যাওয়া, তারপর লাঠির আঘাতে নদীর পানি দুই ভাগ হয়ে যাওয়া, ঈসা (আ.) শিশু থাকা অবস্থায় কথা বলা, সোলায়মান (আ.) সিংহাসন নিয়ে উড়ে বেড়ানো এবং তার পোষা পাখির রাজনীতি নিয়ে চিন্তা করার ক্ষমতা, পৃথিবী দুই দিনে তৈরি করার দাবি ইত্যাদি ইত্যাদি। আমার মতে, এসব কাহিনী যে শুধু মহাবিশ্বের নিয়মের জন্য সম্ভব নয়, তা নয় কিন্তু। কাহিনীগুলো মহাবিশ্বের নিয়মের বাইরে ও ভিতরে সব জায়গায় অযৌক্তিক হবার কথা!!

আপনি হয়তো বলতে পারেন, সৃষ্টিকর্তার যুক্তি আর মানুষের যুক্তি সম্পূর্ণ আলাদা; মানে, যা আমাদের কাছে ‘অযৌক্তিক/ম্যাজিক/মহাবিশ্বের নিয়মবিরোধী’, তা সৃষ্টিকর্তার আছে যৌক্তিক ও সম্ভব। তাহলে নাস্তিকদের ‘ঈশ্বর এমন কোনো পাথর তৈরি করতে পারেন কিনা, যা তিনি উত্তোলন করতে অক্ষম?’ প্রশ্নটি কেন কুযুক্তি হবে?? এমনও তো হতে পারে যে মানুষের মতোই সৃষ্টিকর্তার শক্তির সীমা আছে?

যদি লাঠি সাপ হয়ে যাওয়াকে আমার কাছে কুযুক্তি মনে না হয়, যুক্তির বাইরে গিয়ে তা বিশ্বাস করতে হয়, তাহলে অন্যের প্রশ্নকে আমি কীভাবে কুযুক্তি বলবো?

Zillur Rahman: ভাইয়া, লৌকিক, অলৌকিক সব কিছু করার ক্ষমতা রাখেন বলেই ঈশ্বরকে ঈশ্বর বলে জানি আমরা!! ঈশ্বরের ক্ষমতার যৌক্তিকতার প্রশ্ন আসে বলেই স্যারের লেখায় একটা লাইন এসেছে– “ঈশ্বর যুক্তির অধীন কিনা? এই প্রশ্নটাই অবান্তর।” অর্থাৎ, এ প্রসঙ্গে যত প্রশ্নই আসুক, সবগুলোই ফ্যালাসির অন্তর্ভুক্ত হয়।

আক্কাস আলী: Thank you. Let me reiterate my points. According to the blog:

    1. God is omnipotent.
    2. But, God can only show his omnipotency in anything that is LOGICAL.
    3. That means, God will never do or advocate anything illogical in this universe.
    4. Hence, something illogical like- creating a rock that cannot be lifted by him- is out of question. And a bad argument by atheists.

But my point is,

    1. In Quran, there are many stories that go against God’s own laws of this universe.
    2. And they are illogical and nonsense too!

Zillur Rahman: Thank you too. Actually, I have some answers against your points. But I’ll wait for the replies of my sir.

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক: Zillur Rahman, এই লেখাটা পড়ো। এটা মূলত তোমাদের দুজনের জন্য লেখা– খোদার অস্তিত্ব সম্পর্কে যুক্তি আর অযুক্তির বাছবিচার

পোস্টটির ফেসবুক লিংক

আপনার মন্তব্য/প্রশ্ন লিখুন

ইমেইল অ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত ঘরগুলো পূরণ করা আবশ্যক।

*