নাস্তিকতা, তাদের চর্চিত অশ্লীলতার মতোই পরিত্যাজ্য

সামুতে আমি আস্তিকতা ও নাস্তিকতা নিয়ে বেশ কয়েকটি পোস্ট দিয়েছিলাম।

নাস্তিকরা আস্তিকদের চেয়ে কম অসহিষ্ণু নয়, বরং তারা বেশি ফ্যানাটিক। এটি আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা।

আদর্শিকভাবে ও বাস্তব জীবনাচারে আমি ইসলামী জীবনাদর্শে বিশ্বাসী হলেও নাস্তিকতা হচ্ছে আমার প্রিয় পাঠ্য। বইয়ে, ব্লগে এবং ব্যক্তিগতভাবে।

নাস্তিকরা ইসলামকে ভয় পায়! কারণ, ইসলাম হলো বর্তমান পৃথিবীর উঠতি মতাদর্শ। অবশ্য এই ‘ইসলাম’ আমাদের সমাজে প্রচলিত ইসলাম হতে ভিন্ন! এটি হলো পূর্ণাঙ্গ ইসলাম। তথাকথিত ইসলাম ধর্ম নয়।

নাস্তিকরা অধিকাংশ ক্ষেত্রে জানার ভান করে, জানতে চায় না।

বৃহত্তর কোনো স্থায়ী নীতি-আদর্শ না থাকায় তারা বাহ্যত এক ধরনের সামাজিক নৈতিকতার লেবাস ধারণ করে থাকে। তাদেরকে যারা চ্যালেঞ্জ করে (যেমন– আস্তিকরা), তাদেরকে মোকবিলা করার সময় তাদের এই কৃত্রিম ভদ্রতার আবরণ খসে পড়ে।

নাস্তিকরা হলো আমাদের সমাজে ইসলামের নামে প্রচলিত অপব্যাখ্যা ও অনাচারসমূহের এবং উদীয়মান ইসলামী আন্দোলনের স্বগত শত্রু।

নাস্তিকতা, তাদের চর্চিত অশ্লীলতার মতোই পরিত্যাজ্য।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: সেহেরী খাওয়ার আগে কিছুক্ষণ ঘুমাবো। ফজরের নামাজ পড়েও ঘুমাবো। দিনের কাজ সেরে ব্লগে ফিরবো। কথাটি এজন্য লেখলাম, নাস্তিক ভাই ও বোনেরা যেন মনে না করেন, পোস্ট দিয়ে হাওয়া হয়ে গেছি! সারা দিনরাত তো আর ‘ডিস্কো ঘোড়া’র মতো ব্লগ নিয়ে পড়ে থাকতে পারি না!

সামহোয়্যারইন ব্লগ থেকে নির্বাচিত মন্তব্য-প্রতিমন্তব্য

১. আসিফ মহিউদ্দীন: “নাস্তিকরা ইসলামকে ভয় পায়! কারণ, ইসলাম হলো বর্তমান পৃথিবীর উঠতি মতাদর্শ।”

(ব্যাঙ্গাত্বমূলক ইমোটিকোন)

২. স্তব্ধতা‘: ইসলামকে শুধু নাস্তিকরা না সবাই ডরায়, যেমনে খড়গ হাতে দৌড়ানি দিতেছেন আর মৃত্যুর ফতোয়া দিতেছেন, না ডরায়া তো উপায় নাই। নাস্তিকদের জীবন তো একটাই।

৩. আরিফুর রহমান: সেটাই আসিফ, আমি ভাবছি– চৌদ্দশ বছরের পুরোনো কাসুন্দি ‘উঠতি’ সাইনবোর্ড পায় কীভাবে!

৪. অসম্ভব০০৯: ‘ইসলাম’, ‘পূর্ণাঙ্গ ইসলাম’, ‘তথাকথিত ইসলাম’­– এগুলো একটু বুঝাইবেন ভাই?

কনফিউজড হইয়া গেলাম। আপনিও কি কনফিউজড?

খামাখা কথা পেচাইবেন না, ক্লিয়ার উত্তর দিবেন। নানান হাদিস কোরানও দেখাবেন না। ওইগুলাও একেক জন একেকভাবে বলে। আপনার নিজের কী ধারণা সেইটা বলবেন।

৫. আরিফুর রহমান: মোজাম্মেল ছাহেব, আপনার কথাবার্তা বেশ গোছানো। প্রাক্তন শিবিরের মতো দেখতে হলেও, আপনার মাঝে হালকা জুস আছে বোধ হচ্ছে।

আসেন একটু বাতচিত করি। পোস্টের প্রত্যেক্টা সেকশন নিয়ে আমি কিছু কথা বলবো। আপনি উত্তর দেবেন, ঠিক হ্যায়?

৭. আসিফ মহিউদ্দীন: এ ঘুমাইলে জিহাদ করবো কেডা? তীব্র দিক্কার সেই মুমিন মুচলমানরে যে জিহাদ থুইয়া ঘুমাইতে যায়। নাস্তিকরা তো সব দখলে নিয়া যাইতাছে। লুঙ্গি কাছা দিয়া আহেন তাড়াতাড়ি।

৯. আরিফুর রহমান: প্রথমে পোস্টের টাইটেল দিয়ে শুরু করি।

অশ্লীলতা শব্দটার একটা ব্যখ্যা দাবি করছি। এর মানে কি? নাস্তিকতা সাধারণত হলো, ধর্মজীবিদের একটি পণ্য, মানে ‘ধর্ম’ নামের একটি অবাস্তব অলীক এবং আধুনিক জীবনে অচল ধা্প্পাবাজের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের আরেক নাম।

এখন আপনাদের এই যে অচল, বস্তাপঁচা পণ্যটি, মানে ইশ্বর/ধর্ম, এর যৌক্তিক বিরোধীতা করাকে ‘অশ্লীলতা’ উপাধি দেবার পেছনে আপনার জীবনবাদী যুক্তিটি আমরা শুনতে চাই।

১০. মনির হাসান: @ আরিফ ভাই & আসিফ। লেখকের খিচ উঠছে। হিট দরকার। যা করবেন বুইঝা শুইনা কইরেন। তালগাছবাদীদের তালগাছ যত তাড়াতাড়ি বুঝায় দিতে পারবেন ততই মঙ্গল। খুদাপেজ।

১৪. শাহরিয়ার নাহিদ: নাস্তিকতা নিয়ে লেখক হঠাৎ কী পড়াশোনা করছেন যে এইভাবে খেপে উঠলেন? একটা পরিত্যাজ্য বিষয় হলো আপনার প্রিয়পাঠ্য, শুনে খুশি হলাম।

১৯. আব্বু আমার আব্বু: প্রশ্ন-১. সহি নাস্তিক আপ্নে কয় জন পাইছেন? প্রশ্ন-২. সহি মুসলিম আপ্নে কয় জন পাইছেন?

টেক্সুয়াল ডেফিনেশান অনুযায়ী/বাস্তবে তা হবার নয়, উভয়ই জোরালো যৌক্তিকভাবেই সিদ্ধান্ত নেন।

মুসলমানদের সোনালী অতীত ছিল কিন্তু এখন আন্ধার যুগ চলিতেছে। গত ৫০০ বছরের অবস্থা খুবই করুণ। মাথায় কিঞ্চিৎ ঘিলু থাকিলে যে কেউই বর্তমান সভ্যতায় কার কত অবদান তা বের করতে পারেন। তবে এটা সত্য যে সভ্যতাগুলোর সম্পর্ক কিন্তু মালার মতো সম্পর্কযুক্ত।

হিংসা-বিদ্বেষমুক্ত হওয়া মহৎ মানবের লক্ষণ, আশা করি আপ্নেও মহৎ মানব হতে চাইবেন, আর ৮/১০ জনের মতো। মনে রাইখেন আর ৮/১০ জনের মতো!

২১. পারভেজ আলম: আপনাকে তো যুক্তিবাদী বলেই জানতাম। জ্ঞানতত্ত্ব বিষয়ে তো একেবারে খাঁটি দর্শনের ভাষায় লেখেন। এই লেখায় তো যুক্তির ছিটেফোটাও খুঁজে পেলাম না। নাস্তিকদের সম্বন্ধে এপিস্টেমোলজি তৈরি করেছেন, সে তো ঠুনকো; আর নাস্তিক বিষয়ে আস্তিক মনে জনপ্রিয় কিছু ধারণা লিখলেই সত্য হয়ে যাবে না।

২৪. ডিস্কো ঘোড়া: আমি সারাদিন ব্লগে পড়ে থাকি এই দাবি করা মানে আপনিও সারাদিন ব্লগে পড়ে থেকে আমাকে ফলো করেন, সো এই ফাও কথা বলে পলাইলেন ক্যান? ঈমানের জোর এমন হাল্কা ক্যান? আপনে আস্তিক নামের কলঙ্ক, এবং আমার সন্দেহ একজন ছুপা নাস্তিক আপনি।

২৮. মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক: আপনারা অন্তত সাহসী নাস্তিক। বর্ণচোরা বা বেবুঝ আস্তিক নন। সকলের মন্তব্যের সমন্বয়ে প্রদত্ত নতুন পোস্টের প্রতিমন্তব্যগুলো দেখুন। মন্তব্য দেয়ার জন্য সকলকে ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য/প্রশ্ন লিখুন

ইমেইল অ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত ঘরগুলো পূরণ করা আবশ্যক।

*